রবিবার , ১৮ জুন ২০২৩ | ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০
  1. অন্যান্য
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. ইসলাম
  5. খেলাধুলা
  6. গণমাধ্যম
  7. জাতীয়
  8. তথ্যপ্রযুক্তি
  9. বিনোদন
  10. মতামত
  11. রাজনীতি
  12. লক্ষ্মীপুর
  13. লাইফ স্টাইল
  14. শিক্ষাঙ্গন
  15. সংগঠন সংবাদ

উত্তর ভারতে তাপপ্রবাহে ৯৮ জনের মৃত্যু

প্রতিবেদক
ডেস্ক এডিটর
জুন ১৮, ২০২৩ ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ

ভয়াবহ তাপপ্রবাহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে উত্তর ভারতজুড়ে। বিহার ও উত্তর প্রদেশে গত তিন দিনে প্রচণ্ড তাপের কারণে কমপক্ষে ৯৮ জন মারা গেছে। রোববার ইন্ডিয়া টুডে এ তথ্য জানিয়েছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তাপপ্রবাহের কারণে জ্বর, শ্বাসকষ্ট এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যগত জটিলতা নিয়ে গত তিন দিনে উত্তর প্রদেশের বালিয়ার একটি জেলা হাসপাতালে কমপক্ষে ৪০০ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। বেশিরভাগ রোগীর বয়স ৬০-এর ওপরে।

উত্তর প্রদেশের বালিয়া জেলায় গত ১৫ জুন তাপপ্রবাহের জেরে মৃত্যু হয়েছে ২৩ জনের। ১৬ জুন মৃত্যু হয়েছে ২০ জনের। ১১ জন মারা গেছেন ১৭ জুন। বিহারে চরম তাপপ্রবাহে গত ২৪ ঘন্টায় ৪৪ জন মারা গেছে। এদের মধ্যে ৩৫ জন পাটনার। ১৯ জন রোগী নালন্দা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে এবং ১৬ জন পিএমসিএইচে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে। রাজ্যের অন্যান্য জেলায় ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বালিয়া জেলা হাসপাতালের মেডিক্যাল সুপারিনটেন্টেন্ড এস কে যাদব বলেন, ‘প্রত্যেকের শরীরে আলাদা আলাদা উপসর্গ থাকলেও মৃত্যুর কারণ মূলত মারাত্মক তাপপ্রবাহ।’

জেলা হাসপাতালের চিফ মেডিক্যাল সুপারিনটেনডেন্ট (সিএমএস) দিবাকর সিং সাংবাদিকদের বলেন, রোগী ও কর্মীদের হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি এড়াতে হাসপাতালে ফ্যান, কুলার এবং এয়ার কন্ডিশনার ব্যবস্থা করা হয়েছে। রোগীর ভিড়ের কারণে চিকিৎসক ও প্যারামেডিক্যাল স্টাফের সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে।

একজন কর্মকর্তা ইন্ডিয়া টুডেকে বলেছেন, ‘হাসপাতালে প্রচুর সংখ্যক রোগী ভর্তি হওয়ায়, আমরা এখন স্ট্রেচারের অভাবের মুখে পড়েছি।’

ভারতের আবহাওয়া দপ্তরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার বালিয়ায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪২ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল, যা স্বাভাবিকের চেয়ে ৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি। শনিবার বিহারে তীব্র তাপপ্রবাহে অন্তত ১১টি জেলার পারদ ৪৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়েছে। বিহারের রাজধানী পাটনায় সর্বোচ্চ ৪৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

পাটনায় ২৪ জুন পর্যন্ত স্কুলগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং রাজ্যের অন্যান্য জেলাগুলিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে।

সর্বশেষ - রাজনীতি