লুট হওয়া আইফোন বলছে, ‘আমাকে ফিরিয়ে দিন’

লক্ষ্মীপুর সময় ডেস্কঃ

একদিকে করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ সংক্রমণ অন্যদিকে জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ড নিয়ে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্র। বিভিন্ন রাজ্যের হাসপাতালগুলোতে লাশের সারি। সড়কগুলো বিক্ষোভে উত্তাল। এমন পরিস্থিতির মধ্যে সক্রিয় সুযোগ সন্ধানীরা।

জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডে উত্তপ্ত যুক্তরাজ্য। অন্তত ৪০টি শহরে কারভিউ জারি করা হয়েছে। বেশ কয়েকটি রাজ্যে সেনাবাহিনীও নামানো হয়েছে। পরিস্থিতির অবনতি ঘটে গত সপ্তাহে। বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে পড়ে। এই বিক্ষোভের মধ্যেই ফিলাডেলফিয়া শহরে অ্যাপলের শোরুমে ঘটে লুটের ঘটনা।

কর্তৃপক্ষের দাবি, বিক্ষোভকারীরা এই লুটপাট চালিয়েছে। অবশ্য বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে অ্যাপল স্টোর ছাড়াও কয়েক হাজার দোকানপাটে লুটপাটের অভিযোগ আনা হচ্ছে। বিভিন্ন অভিযোগে এ পর্যন্ত ১০ হাজারের বেশি গ্রেফতার করা হয়েছে।

তবে অ্যাপল স্টোরে লুটের ঘটনা যারাই ঘটাক তারা আসলে বিপাকে পড়েছেন। এখন না পারছেন লুট করা মালামাল ব্যবহার করতে, আবার না পারছেন বিক্রি করতে। অন্যদিকে তাদের অবস্থান ট্রাক করারও ব্যবস্থা করেছে অ্যাপল।

চুরি হওয়া মালামালের মধ্যে অ্যাপলের মোবাইল ফোন ‘আইফোন’ ছাড়াও অন্যান্য ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী ছিল। এর যেসব পণ্যে মনিটর রয়েছে যেমন, আইফোন, আইপড, অ্যাপল মিনটর, ঘড়ি; সেগুলো চালু করলে ফেরত দেয়ার বার্তা দেখাচ্ছে।

সম্প্রতি সামাজিকমাধ্যমে এমন বার্তাসহ ছবি ভাইরাল হয়েছে। সেখানে বলা হচ্ছে, দয়া করে (আমাকে) অ্যাপল ওয়ালটান স্ট্রিটে ফিরিয়ে দিন।  এই যন্ত্রটি অকার্যকর করে দেয়া হয়েছে এবং ট্রাকিং করা হচ্ছে।

অ্যাপল ইনসাইডারের খবরে বলা হয়েছে, লুট হওয়া ডিভাইসগুলো অ্যাপল কর্তৃপক্ষ অকার্যকর করে দিয়েছে। ডিভাইসগুলো এখন যাদের হাতে রয়েছে তারা এগুলো পুনরায় সেটিংসও করতে পারবেন না। ফলে সেগুলো ফেলে দেয়া বা ফেরত দেয়া ছাড়া বিকল্প কানো উপায় নেই।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়েছে, অ্যাপল কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে, ফিলাডেলফিয়াসহ ওই দিন পোর্টল্যান্ড, সল্ট লেক সিটি, ওয়াশিংটন ডিসিসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় অ্যাপলের স্টোরে লুটপাট হয়েছে।

বিভিন্ন স্টোর থেকে যেসব ডিভাইস লুট করা হয়েছে তা অ্যাপলের আইক্লাউড থেকে লক করে দেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে অ্যাপল কর্তৃপক্ষ।  এই লক খোলার কোনো প্রযুক্তি অ্যাপল কর্তৃপক্ষ ছাড়া কারো কাছে নেই। সূত্রঃ সময় সংবাদ।

এই জাতীয় আরো খবর

আপনার মতামত জানাতে পারেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.