পিরোজপুরে চলছে ৪৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৫০ শয্যার হাসপাতালের নির্মাণ কাজ

সংবাদদাতাঃ

মহামারী করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে পিরোজপুরে ২৫০ শয্যার হাসপাতালের নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে।
সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার জানান, ইতিমধ্যেই ৩০ শতাংশ নির্মাণ কাজ শেষ করেছে। ৪৫ কোটি টাকা ব্যয়ের এ হাসপাতালের নির্মাণ কাজ ২০২০ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ করার সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন গণপূর্ত অধিদপ্তর এর পিরোজপুরের নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়। ১২ তলা বিশিষ্ট হাসাপাতাল ভবনের প্রাথমিক পর্যায়ে ৮তলা নির্মাণ করা হচ্ছে।
গণপূর্ত বিভাগের পিরোজপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী বিশ^নাথ বনিক জানিয়েছেন, এ ভবনের বেসমেন্ট এ ৩৫টি গাড়ি ও স্টোর থাকবে। প্রথম তলায় জরুরী ও বর্হিবিভাগ এবং রেডিওলজি বিভাগ থাকবে। ২য় তলার থাকবে প্রশাসনিক অফিস ও বর্হিবিভাগ। ৩য় থেকে ৬ষ্ঠ তলায় পুরুষ ও মহিলা ওয়ার্ড ও অপারেশন থিয়েটার। ৭ম তলায় থাকবে কেবিন। মুক্তিযোদ্ধা এবং প্রতিবন্ধীদের জন্য দু’টি করে মোট চারটি কেবিন রিজার্ভ থাকবে। এছাড়া ২টি ভিআইপি কেবিনসহ মোট ১৮টি কেবিন থাকবে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার ২০০৯ সালে সরকার গঠন করে পিরোজপুরের ৫০ শয্যার হাসপাতালটিকে ১০০ শয্যায় উন্নীত করেছে এবং সেখান থেকে এ হাসপাতালটিকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে উন্নীত করা হয়েছে এবং হাসপাতালে নতুন ভবন নির্মাণের লক্ষ্যে নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়েছে।

এই জাতীয় আরো খবর

আপনার মতামত জানাতে পারেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.