কিম জং উনের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের অস্ত্রোপচারের পর শারীরিক অবস্থার গুরুতর অবনতি হয়েছে।মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন এ তথ্য জানায়।

মার্কিন গোয়েন্দা বিভাগের এক কর্মকর্তা জানান, গত ১৫ এপ্রিল দাদার জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না কিম। এর পরই তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। এর ৪ দিন আগে সরকারি এক বৈঠকে তাকে শেষবার দেখা গিয়েছিল।আরেক মার্কিন কর্মকর্তা জানান, কিমের অসুস্থতার খবর বিশ্বাস্য হলেও তা কতটা গুরুতর সেটি বোঝা কঠিন।এদিকে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক অনলাইন সংবাদমাধ্যম ‘ডেইলি এনকে’ জানায়, ১২ এপ্রিল কিম জং উনের হৃদযন্ত্রে অস্ত্রোপচার হয়েছে। অতিরিক্ত ধূমপান, মুটিয়ে যাওয়া এবং অধিক পরিশ্রমের কারণে অসুস্থ হয়ে পড়ায় তার হৃদযন্ত্রে এ অস্ত্রোপচার করা হয়। তিনি এখন হিয়াংসান কাউন্টিতে তার ভিলায় বিশ্রাম নিচ্ছেন।৩৬ বছর বয়সী এ নেতার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায়, তার চিকিৎসায় নিয়োজিত মেডিক্যাল টিমের অধিকাংশ সদস্য ১৯ এপ্রিল পিয়ংইয়ং ফিরে যান। তবে তার সুস্থতা পর্যবেক্ষণের জন্য কয়েকজন সেখানেই রয়ে গেছেন।এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদ এবং গোয়েন্দা বিভাগের পরিচালকের দপ্তর এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।২০১৪ সালে এক মাসেরও বেশি সময়ের জন্য গায়েব হয়ে যান কিম জং উন। তখনো তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। পরে দক্ষিণ কোরিয়ার গোয়েন্দা বিভাগ জানায়, কিমের গোড়ালি থেকে একটি সিস্ট অপসারণ করা হয়েছে। এ সময় কিমকে ছড়ির সাহায্যে হাঁটতে দেখা যায়।

এই জাতীয় আরো খবর

আপনার মতামত জানাতে পারেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.