করোনায় আক্রান্ত হয়ে লক্ষ্মীপুরের কৃতি সন্তান অধ্যাপক ড. নাজমুল করিম চৌধুরীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সকালে তার মৃত্যু হয় বলে জানান হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন।

তিনি বলেন, “উনি ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাঁর করোনাভাইরাস পজিটিভ ছিল। ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। আমাদের সাথে যোগাযোগ করায় দুই-তিন দিন আগে আমরা তাঁকে নিয়ে এসেছিলাম। প্রথম থেকেই উনার অবস্থা খারাপ ছিল, আইসিইউতে ছিলেন। আমরা তাঁকে বাঁচানোর অনেক চেষ্টা করেছি, কিন্তু পারিনি।”

অধ্যাপক ড. নাজমুল করিম চৌধুরী এক সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগে শিক্ষকতা করেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান এক শোকবার্তায় বলেন, “অধ্যাপক ড. মো. নাজমুল করিম চৌধুরী ছিলেন এদেশের একজন স্বনামধন্য শিক্ষাবিদ, লেখক, গবেষক ও মানবিক চেতনার অসাধারণ গুণী ব্যক্তি।

“তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দীর্ঘকাল সুনামের সাথে অধ্যাপনা করেছেন। এছাড়া, তিনি বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটির অনারারি ট্রেজারারসহ দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে দক্ষতা ও পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন।”

অধ্যাপক আখতারুজ্জামান মরহুমের রূহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোক-সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

অধ্যাপক নাজমুল করিম ১৯৪৯ সালের ১৫ নভেম্বর তৎকালীন নোয়াখালী (বর্তমান লক্ষ্মীপুর) জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৭০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ম্যানেজমেন্টে মাস্টার্স করার পর ১৯৮৪ সালে ব্রাসেলস ইউনিভার্সিটি থেকে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন।

ঢাকা কলেজে শিক্ষকতা দিয়ে চাকরি জীবন শুরু করে পরে ১৯৭৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগে যোগ দেন নাজমুল করিম। ২০১৬ সাল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ইএমবিএ প্রোগ্রামের পরিচালক ছিলেন তিনি।

মাঝে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছুটি নিয়ে ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংকেও তিনি এক দশকের বেশি সময় কাজ করেছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অবসর নিয়ে ২০১৬ সালের আগস্টে ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছিলেন অধ্যাপক ড. নাজমুল করিম চৌধুরী।

তাঁর মত একজন গুণী মানুষকে হারিয়ে লক্ষ্মীপুর জেলাবাসী গভীরভাবে শোকাহত।

এই জাতীয় আরো খবর

আপনার মতামত জানাতে পারেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.